ব্যাকরণ

উপসর্গ কাকে বলে, কত প্রকার ও কী কী?

উপসর্গ হচ্ছে অব্যয়সূচক শব্দাংশ বা ধ্বনি যা অন্য শব্দের আগে যুক্ত হয়ে নতুন অর্থবোধক শব্দ গঠন করে। উপসর্গ নিজে স্বাধীন শব্দ বা পদ হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে না—অন্য শব্দের সঙ্গে যুক্ত হয়। উপসর্গের অর্থবাচকতা নেই কিন্তু অর্থদ্যোতকতা আছে

১. বাংলা উপসর্গ : বাংলা ভাষার নিজস্ব (খাঁটি বাংলা) উপসর্গ মোট ২১ টি।

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
নয়, মন্দতাঅকাজ, অমিল, অসীম
অঘাবোকাঅঘামার্কা, অঘারাম, অঘাচণ্ডী
অজনিতান্ত (মন্দ)অজমূর্খ, অজপুকুর, অজপাড়াগাঁ
অনামন্দতা, অভাব, অদ্ভুতঅনাবৃষ্টি, অনাসৃষ্টি, অনামুখো
আড়বাঁকা, প্রায়আড়পাগলা, আড়চোখা, আড়মোড়া
আননয়, বিক্ষিপ্তআনকোরা, আনচান, আনমনা
আবঅস্পষ্টতাআবছায়া, আবডাল,
ইতিএ বা এর, পুরাতনইতিকর্তব্য, ইতিকথা, ইতিহাস
উনকমউনপাঁজুরে, উনপঞ্চাশ
কুমন্দতাকুনজর, কুমতলব, কুখ্যাত, কুদৃষ্টি
নিনেই, নেতিবাচকনিখুঁত, নিখাদ
পাতিক্ষুদ্রপাতিলেবু, পাতিহাঁস, পাতিনেতা
ভরপূর্ণভরপেট, ভরদুপুর
রামবড়ো, উৎকৃষ্টরামছাগল, রামদা
সাউৎকৃষ্টসাজোয়া
হাঅভাবহাঘরে, হাপিত্যেশ, হাভাতে
অভাব, বাজে, নিকৃষ্টআধোয়া, আগাছা, আকাল
কদ্নিকৃষ্টকদাচার, কদাকার, কদর্য
বিনেই, নিন্দনীয়বিপথ, বিকল, বিফল
সঙ্গে, অতিশয়সরব, সঠিক, সজোর, সপরিবার
সুভালো, উৎকৃষ্টসুখবর, সুদিন, সুপাঠ্য

২. সংস্কৃত উপসর্গ : সংস্কৃত থেকে বাংলায় এসেছে এমন উপসর্গ মোট ২০ টি।

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
প্রপ্রকৃষ্ট, সম্যক, আধিক্য, খ্যাতিপ্রচলন, প্রদান, প্রভাব, প্রতাপ, প্রগাঢ় , প্রস্থান
পরাবিপরীত, আতিশয্যপরাভব, পরাজয়, পরাশক্তি, পরাভূত
অপবিপরীত, অপকর্ষ, দূরীকরণঅপচয়, অপমান, অপকার, অপসারণ
সম্সন্নিবেশ, সম্যক, অভিমুখী, আতিশয্যসংগঠন, সংকলন, সঞ্চয়, সমাদর, সমর্থন
নিআধিক্য, পুরোপুরি, নিচেনিপীড়ন, নিদারুণ, নিশ্চুপ, নিস্তব্ধ, নিবিষ্ট, নিপাত, নিক্ষেপ
অবনিম্নমুখিতা, মন্দ, সম্যকঅবরোধ, অবতরণ, অবগাহন, অবনতি, অবজ্ঞা, অবক্ষয়
অনুপরে, নিরন্তরতা, অভিমুখী, সাদৃশ্যঅনুতাপ, অনুশোচনা, অনুগামী, অনুসরণ, অনুকূল, অনুলিপি
নিঃঅভাব, বিশেষভাবে, বহির্মুখিতানিরক্ষর, নিরপরাধ, নিরহংকার, নিষ্পন্ন
দুঃমন্দ, অভাব, কঠিন, আধিক্যদুঃসাহস, দুর্দান্ত, দুর্দমনীয়, দুর্নীতি, দুস্তর, দুষ্কর্ম
বিসম্যক, বিপরীত, ভিন্ন, অভাববিফল, বিকর্ষণ, বিবর্ণ, বিশৃঙ্খল, বিকার, বিজ্ঞান
অধিপ্রধান, মধ্যেঅধিপতি, অধিনায়ক, অধিকার, অধিষ্ঠিত
সুভালো, সহজ, আতিশয্যসুগন্ধ, সুগঠিত, সুমতি, সুনাম, সুতীব্র
উৎওপরের দিক, অপকর্ষ, আতিশয্যউল্লিখিত, উন্নতি, উদ্‌বোধন
পরিচতুর্দিক, সম্পূর্ণপরিভ্রমণ, পরিক্রমা, পরিতৃপ্ত, পরিত্যক্ত
প্রতিবিপরীত, সাদৃশ্য, পৌনঃপুনিকতাপ্রতিপক্ষ, প্রতিরক্ষা, প্রতিদিন, প্রতিচ্ছবি, প্রতিদান
উপনিকট, অপ্রধান, সম্যকউপকূল, উপকণ্ঠ, উপভাষা, উপভোগ, উপাচার্য, উপবন
পর্যন্ত, ঈষৎআকণ্ঠ, আমরণ, আনত, আরক্ত
অভিসম্যক, গমনঅভিব্যক্তি, অভিযান, অভিসার
অপিব্যাকরণের সূত্রঅপিনিহিতি
অতিআতিশয্য, অতিক্রমঅতিশয়, অতিমানব, অতিপ্রাকৃত

৩. ফারসি উপসর্গ : বাংলায় বহুল ব্যবহৃত ফারসি উপসর্গগুলো হলো :

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
কারকাজকারবার, কারখানা, কারসাজি
খোশআনন্দদায়কখোশগল্প, খোশমেজাজ
দরকম, নিম্নস্থদরকাঁচা, দরদালান, দরপাট্টা
নানয়নারাজ, নাচার, নাবালক, নাহক
নিমঅর্ধ বা প্রায়নিমরাজি, নিমখুন
ফিপ্রত্যেকফি-বছর, ফি-হপ্তা
সহ বা সঙ্গেবকলম, বমাল
বদমন্দ, উগ্রবদমেজাজ, বদনাম, বদনসিব, বদমায়েশ, বদভ্যাস
বেনেই, খারাপ, ভিন্নবেআক্কেল, বেহুঁশ, বেশরম, বেতার, বেকার

৪. আরবি উপসর্গ : বাংলায় বহুল ব্যবহৃত আরবি উপসর্গগুলো হলো :

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
আমসর্বসাধারণআমজনতা, আমদরবার, আমরাস্তা
খাসব্যক্তিগতখাসকামরা, খাসমহল, খাসদখল
লানা, নেইলাপাত্তা, লাখেরাজ, লাওয়ারিশ
গরনেই, ভুলগরমিল, গররাজি, গরহাজির

৫. ইংরেজি উপসর্গ : বাংলায় বহুল ব্যবহৃত ইংরেজি উপসর্গগুলো হলো :

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
ফুলপুরোফুলপ্যান্ট, ফুলমোজা
হাফঅর্ধেকহাফটিকিট, হাফপ্যান্ট
হেডপ্রধানহেডমাস্টার, হেডপণ্ডিত
সাবঅধীন, অপ্রধানসাব-রেজিস্ট্রার, সাব-অর্ডিনেট, সাব-অফিস, সাব-জোনাল

৬. উর্দু ও হিন্দি উপসর্গ : বাংলায় ব্যবহৃত হিন্দি ও উর্দু উপসর্গ ১ টি।

নামঅর্থদ্যোতনাউদাহরণ
হরপ্রত্যেক, বিভিন্নহররোজ, হরকিসিম, হরহামেশা

উল্লিখিতউদ্‌বোধন দুটি বহুল ব্যবহৃত উপসর্গযুক্ত শব্দ যা আমরা ভুুল করি।

সম্পূর্ণ দেখুন

ফারহান সাদিক শাহীন

পরিচালক, প্রমিত বাংলা চর্চা | শিক্ষার্থী (স্নাতক), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

মন্তব্য করুন

Back to top button
Close